বছরের হাস্যকর বিয়ের পাত্রী অপু বিশ্বাস

cats-31

ঢাকাই চলচ্চিত্রের কুইন অপু বিশ্বাস ছিলেন চলতি বছরের সবচেয়ে হাস্যকর বিয়ের পাত্রী। শুধু তাই নয়, শাকিবের সন্তানের মা বানিয়ে দেয়া হয়েছিলো তাকে। মিথ্যা, গুজবে ভরপুর এসব খবর অপুকে পৌঁছে দিয়েছে হাস্যকর বিয়ের আসরে। এখনও বাজছে সেই বিয়ের সানাই।

Loading...

এ বছরের মাঝামাঝি সময় থেকে একেবারে হাওয়া হয়ে যান অপু বিশ্বাস। প্রযোজক, পরিচালক, সহকর্মী কারো কাছেই মেলেনি নায়িকার খোঁজ। হঠাৎ জানা যায়, তিনি শিলিগুড়িতে তার এক আত্মীয়র বাসায় রয়েছেন। তার এমন আত্মগোপন এবং শাকিব খানের নীরবতা জন্ম দেয় হাজারো প্রশ্নের। দিনকে দিন ঘোলা হতে থাকে সেই জল।

ঘটনার মোড় নেয় অন্যদিকে। শাকিবের সন্তানের মা হয়েছেন অপু বিশ্বাস, এমন খরব বাতাসের চেয়েও জোর গতিতে ছড়িয়ে পড়ে। এতদিন শাকিব-অপুর প্রেম নিয়ে নানা গুঞ্জন শোনা গেলেও মানা যায়। কিন্তু হঠাৎ সন্তান জন্ম দেয়ার খবর একটু বেশীই খামখেয়ালী। খবর রটে শিলিগুড়িতে শাকিবের তত্ত্বাবধানেই একটি হাসপাতালে ভর্তি আছেন অপু। তবে এসব খবরের কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। শাকিবও বেশ কিছু গণমাধ্যমের প্রশ্নে কৌশলে এড়িয়ে গেছেন বিষয়টি।

আবার শোনা যায়, শাকিব অধ্যায়ের অবসান ঘটিয়ে অবশেষে বিয়ে করছেন অপু বিশ্বাস। পাত্র যশোরের ছেলে তন্ময় বিশ্বাস। রাজধানী ঢাকার উত্তরার একটি কমিউনিটি সেন্টারে পারিবারিক আয়োজনে বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে নায়িকার। ফেসবুক স্ট্যাটাসে এমনই এক চমকপ্রদ খবর জানিয়েছিলেন ‘সত্ত্বা’ চলচ্চিত্রের চরিত্রাভিনেতা জিতু নোটা। তিনি নিজেকে অপুর হবু স্বামী তন্ময়ের বন্ধু বলে দাবি করেন। যদিও খবরটি ছিলো ভুয়া।

এক বছরে আর কত বিয়ে? যাই হোক, চলতি বছর অপুর দেখা না পেলেও ২০১৭ সালে অপুকে ফিরে পাবেন তার ভক্তরা। ঢাকাই ছবির পর্দায় দৌড়ে বেড়াবেন অপু। মিষ্টি হাসিতে মাত করবেন হলের দর্শক। সেই অপেক্ষায় সবাই। ফিরে আসুক অপু বিশ্বাস।